দশমিনায় কিশোর-কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার

সিলেট বিডি নিউজ
প্রকাশিত ১৭, ফেব্রুয়ারি, ২০২১, বুধবার
দশমিনায় কিশোর-কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার

মোঃ মোস্তফা কামাল খাঁন পটুয়াখালী: পটুয়াখালীর দশমিনায় পৃথক ঘটনায় একজন কিশোর ও একজন কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি-২০২১) রাতে উপজেলার সদর ইউনিয়নের চরহাদী গ্রামে বিষপানে মো. সুমন হাওলাদার (১৬) ও ওইদিন বিকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের খামারবাড়ি সংলগ্ন এলাকায় মায়ের সঙ্গে অভিমান করে খাদিজা (১৫) আত্মহত্যা করেছে।নিহত মো. সুমন হাওলাদার একই গ্রামের আনোয়ার হাওলাদারের ছেলে।

নিহত সুমনের বাবা আনোয়ার হাওলাদার অভিযোগ করে বলেন, উপজেলার সদর ইউনিয়নের চরহাদীর বন বিভাগের বিট কর্মকর্তা মিজান বিভিন্ন দফায় তার কাছ থেকে চরের বনে মহিষ চরানোর অজুহাতে ১২-১৪ হাজার টাকা আদায় করেন।

গত সোমবারও বনে মহিষ চরানোর অজুহাতে তার থেকে দুই হাজার টাকা আদায় করেন ওই বিটকর্তা। ওই বিটকর্তা তার ছেলেকে একবার মারারও চেষ্টা করেছিলেন। ঘটনার দিন বিকালে ওই বিট কর্মকর্তা তাদের মহিষ আটক করেন। আনোয়ার হাওলাদারের দাবি– বারবার মহিষ আটক করায় অভিমানে তার ছেলে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। পরে তাকে উদ্ধার করে দশমিনা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ওই কিশোরকে মৃত ঘোষণা করেন।

অভিযোগের বিষয় বিট কর্মকর্তা মিজান বলেন, মহিষ ধরে খড়ে দিয়ে দিয়েছি। এর পর তাদের সঙ্গে আমার সাক্ষাৎ হয়নি।

অপরদিকে মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের খামারবাড়ি সংলগ্ন এলাকায় মায়ের সঙ্গে অভিমানে খাদিজা নামে এক শিক্ষার্থী বিষের ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করে। খাদিজা ওই এলাকার নুরু গাজীর মেয়ে ও বেগম আরেফাতুনেছা বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

এবিষয়ে দশমিনা থানার ওসি মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

 68 total views

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন
  • 4
    Shares
error: Content is protected !!