নারায়ণগঞ্জে হেনস্তার স্বীকার মামুনুল হক তাঁর স্ত্রী! সারাদেশে সমালোচনা

সিলেট বিডি নিউজ
প্রকাশিত ৩, এপ্রিল, ২০২১, শনিবার
নারায়ণগঞ্জে হেনস্তার স্বীকার মামুনুল হক তাঁর স্ত্রী! সারাদেশে সমালোচনা

ডেস্ক নিউজ: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে এক রিসোর্টের রুমে নারীসহ আটকের পর ‘হামলা চালিয়ে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে ছিনিয়ে নিয়ে গেছে’ তার অনুসারীরা।

শনিবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে তাকে ‘ছিনিয়ে নেওয়ার পর’ তিনি ঢাকা উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন।

অন্যদিকে, এ ঘটনার প্রতিবাদে রাত ৮টার দিকে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে আগুন জ্বালিয়ে, গাড়ি ভাংচুর করে সড়ক অবরোধ করে। এতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়েও যায়।

‘ছিনিয়ে নেওয়ার’ আগে ঘটনার রিসোর্টের ভেতরে হেফাজত নেতা মামুনুল হককে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করছিল।
এ ব্যাপারে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) টিএম মোশাররফ হোসেন বলেন, সন্ধ্যা ৭টার দিকে হেফাজতে নেতা মামুনুল হককে তাদের (পুলিশের) কাছে নিয়ে নেয় হেফাজতের লোকজন।
ওই নারী মামুনুল হকের স্ত্রী কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে তারা দু’জন জানিয়েছেন তারা স্বামী-স্ত্রী।

এ বিষয়ে অতিরিক্তি ডিআইজি জেহাদুল কবীর বলেন, মামুনুল হক ঢাকা উদ্দেশ্যে চলে গেছেন।
“আমরা তাকে গ্রেপ্তার করিনি।”

হেফাজতের লোকজন মামুনুল হককে ছিনিয়ে নিয়ে গেছে কিনা জানতে চাইলে অতিরিক্তি ডিআইজি বলেন, “তার লোকজন এসেছিল। তাদের সঙ্গে তিনি চলে গেছেন।”

ওই নারী হেফাজতের স্ত্রী কি-না প্রসঙ্গে তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে এটা তার দ্বিতীয় স্ত্রী।
অবরোধ প্রসঙ্গে অতিরিক্ত ডিআইজি জেহাদুল কবীর জানান, মামুনুলকে গ্রেপ্তার করা হয়ে বলে ‘গুজব ছড়িয়ে পড়ায়’ তার সমর্থকরা অবরোধ করেছিল। পরে বুঝতে পেরে তারা অবরোধ তুলে নিয়ে চলে গেছে হেফাজতের নেতাকর্মীরা।

অন্যদিকে, হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর ও জেলার আমীর আব্দুল আউয়ালের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তার খাদেম আনোয়ার চৌধুরী ফোন রিসিভ করে জানান, হেফাজত নেতা মামুনুল হককে রাত পৌঁনে ৮টার দিকে উদ্ধার করা হয়েছে।

 230 total views

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন
  • 46
    Shares
error: Content is protected !!