বড়লেখায় কুপিয়ে গৃহবধূ হত্যা, ঘাতক গ্রেফতার

সিলেট বিডি নিউজ
প্রকাশিত ১৭, এপ্রিল, ২০২১, শনিবার
বড়লেখায় কুপিয়ে গৃহবধূ হত্যা, ঘাতক গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক: মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলায় ধাঁরালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে রবিতা বাক্তি (৩২) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত রবিতা বাক্তি উপজেলার নিউ সমনবাগ বাগানের বাসিন্দা অটোরিকশাচালক চা সুষেন বাক্তির স্ত্রী।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে উপজেলার নিউ সমনবাগ চা বাগানে এই ঘটনা ঘটে।এই ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত প্রদীপ বাক্তি মিঠুনকে (৩০) আটক করেছে।

এদিকে শনিবার (১৭ এপ্রিল) হত্যার দায় স্বীকার করে প্রদীপ বাক্তি মিঠুন আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। জবানবন্দি শেষে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শিশুদের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে শুক্রবার রাতে চা শ্রমিক প্রদীপ বাক্তি মিঠুন মামা (রবিতার শ্বশুর) ভাগ্য বাক্তির সঙ্গে ঝগড়া শুরু করেন। একপর্যায়ে তিনি তার মামার ওপর হামলার চেষ্টা করেন। এসময় রবিতা বাক্তি শ্বশুরকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে মিঠুন তাঁর হাতে থাকা দা দিয়ে রবিতার পেটে আঘাত করেন। এতে রবিতা গুরুতর আহত হন। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় রবিতাকে উদ্ধার করে চা বাগানের হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পরই স্থানীয়রা প্রদীপ বাক্তি মিঠুনকে আটক করে পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে এবং প্রদীপ বাক্তি মিঠুনকে আটক করে।

বড়লেখা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রতন দেবনাথ শনিবার বিকেলে, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রদীপকে আটক করেছে। এই ঘটনায় নিহত রবিতার স্বামী সুষেন বাক্তি প্রদীপের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেছেন। সকালে (শনিবার) ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। রবিতার স্বামীর করা মামলায় প্রদীপকে গ্রেফতার দেখিয়ে আজ (শনিবার) আদালতে সোপর্দ করা হয়। প্রদীপ আদালতে হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন। পরে আদালতের নির্দেশে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 1,586 total views

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন
error: Content is protected !!